NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন চেক করুন

আপনার নামে নিবন্ধিত যেকোনো সিম নাম্বার ব্যবহার করে আপনার NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা তা খুব সহজেই বের করতে পারবেন। USSD কোড ডায়াল করে অথবা SMS পাঠিয়েও সিমের নিবন্ধন তথ্য জানা যাচ্ছে।

আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে যদি অন্য কারো সিম রেজিস্ট্রেশন করা থাকে তাহলে, সিম রেজিস্ট্রেশন তথ্য যাচাই করার মাধ্যমে জানতে পারবেন। আপনি চাইলে অপ্রয়োজনীয় সিমগুলো রেজিস্ট্রেশন বাতিল করতে পারবেন।

২০১৫ সালের ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশে সর্বপ্রথম বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে সিম কার্ড (SIM Card) রেজিস্ট্রেশন চালু করা হয়। এর পূর্বে সিম কার্ড রেজিস্ট্রেশন করার জন্য কোন প্রকার আঙ্গুলের ছাপ কিংবা জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রয়োজন হতো না। বর্তমানে একটি আইডি কার্ড দিয়ে সর্বোচ্চ ১৫ টি SIM (Subscriber Identity Module) রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।

তথ্যসূত্রঃ BTRC

একজনের সিম কার্ড অন্যজনের নামে রেজিস্ট্রেশন করার কারণে পরবর্তী সময়ে সিম কার্ডের বিভিন্ন জটিলতা জন্য বিড়ম্বনায় পরতে হয়। তাই আপনার NID Card দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে তা জানা জরুরী।

NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন
NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন চেক

সিম নিবন্ধন চেক করার মাধ্যমে যে সকল তথ্য জানা যাবে

  • মোট নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা
  • কোন অপারেটর সিম কয়টি
  • নিবন্ধিত / রেজিস্ট্রেশন করা সকল সিমের নাম্বার (আংশিক)

আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে

আইডি কার্ড বা NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা তা জানার জন্য মোবাইলের ডায়াল অপশন থেকে *16001# ডায়াল করুন। তারপর আবার একটি ইনপুট ডায়লগ আসবে, সেখানে আপনার আইডি কার্ডের শেষ 4 ডিজিট টাইপ করে সেন্ড করুন। ১৬০০ থেকে SMS এর মাধ্যমে NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা তার তালিকা জানিয়ে দেয়া হবে।

  • মোবাইলের ডায়াল অপশনে যান
  • সিম রেজিস্ট্রেশন যাচাই কোড *১৬০০১# ডায়াল করুন
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের শেষ চার সংখ্যার লিখুন
NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন চেক
NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন চেক

এই সহজ নিয়মটি অনুসরণ করার মাধ্যমে চেক করতে পারবেন আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র ব্যবহার করে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে।

NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন চেক করুন

NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন / নিবন্ধন করা হয়েছে তা চেক করার জন্য কোড ডায়াল করতে হয়। ফোন করার জন্য যেভাবে নাম্বার ডায়াল করতে হয় ঠিক তেমনি *16001# লিখে ডায়াল করতে হবে।

তারপর এই সিমটি যে ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা সে NID নাম্বারের শেষ চারটি সংখ্যা লিখে সেন্ড করতে হবে। প্রদত্ত তথ্য সঠিক হলে আপনার মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে এই NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন তা দেখানো হবে।

সিম নিবন্ধনের তথ্য সহ SMS টি ১৬০০১ এই নাম্বার থেকে পাঠানো হবে। এসএমএস এর মধ্যে উল্লেখ থাকবে উত্তর জাতীয় পরিচয় পত্রের মাধ্যমে মোট কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। কোন অপারেটর সিম কয়টি এবং সকল সিমের নাম্বার (আংশিক)

sim registration check by nid
SIM registration check by NID

সিম কার নামে নিবন্ধন চেক করুন

সিম কার নামে নিবন্ধন করা সেটি চেক করার জন্য *১৬০০১# এই কোড ব্যবহার করতে হয়।

SIM Registration Check Dial Code: *16001#

NID Card যাচাই করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

এখানে সিমের নাম্বার আংশিক দেখা যাবে বলতে বুঝানো হয়েছে আপনার ভোটার আইডি দিয়ে যতগুলো সিম রয়েছে তার একটি তালিকা দেখতে পারবেন ঠিকই কিন্তু মোবাইল নাম্বারের মাঝের কিছু অংশ হাইড করা থাকবে। আপনি নাম্বার গুলোর প্রথম এবং শেষের ৩ ডিজিট দেখতে পাবেন।

আপনার মোবাইল নাম্বারটি যদি ০১২৫৯৮৫৪৭৫৮ হয় তাহলে সেটি ০১২*****৭৫৮ এভাবে দেখাবে। নিরাপত্তা বজায় রাখার জন্য এরকমটি করা হয়। যদি নাম্বারগুলো আপনি নিবন্ধন করে থাকেন তাহলে অবশ্যই নাম্বারের প্রথম এবং শেষের সংখ্যা দেখে তা বুঝতে পারার কথা।

কোন সিম অপরিচিত মনে হলে বা আপনি ব্যবহার না করে থাকলে সেটি বাতিল করতে পারবেন। অকার্যকর অথবা নষ্ট হয়ে যাওয়া সিম কার্ড গুলো আপনার নিবন্ধন তালিকা থেকে বাতিল করতে পারবেন।

সিম রেজিস্ট্রেশন চেক অনলাইন

আপনার আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি সিম নিবন্ধন করা আছে তা জানার জন্য সিম কোম্পানিতে যোগাযোগ করতে হবে না, যেতে হয় না কোন কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে। এখন সিম রেজিস্ট্রেশন চেক করুন অনলাইনে ঘরে বসে।

সিম রেজিস্ট্রেশন চেক অনলাইন বা ইন্টারনেট প্রয়োজন নেই। বাটন ফোন কিংবা স্মার্ট যে কোন মোবাইল থেকে ডায়াল কোড ব্যবহার করেই জেনে নিন আপনার নামে নিবন্ধিত সিমের তালিকা।

সিম অপারেটরডায়াল কোড
রবি*16001#
এয়ারটেল*16001#
বাংলালিংক*16001#
ডায়াল করে সিমের রেজিস্ট্রেশন যাচাই

গ্রামীণফোন এবং টেলিটক সিমের ক্ষেত্রে আপনি মেসেজের মাধ্যমে সিম কার্ড নিবন্ধন চেক করতে পারবেন। গ্রামীণফোনের সিমের মাধ্যমে নিবন্ধন যাচাই করার জন্য গিয়ে মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন info এবং পাঠিয়ে দিন 4949 নাম্বারে।

আপনার সিমটি টেলিটক হলে সে ক্ষেত্রে info লিখে ১৬০০ নম্বরে মেসেজ পাঠান। ফিরতি এসএমএসে আপনার আইডি দিয়ে নিবন্ধিত সিমের তথ্য জানানো হবে।

সিম অপারেটরমেসেজনাম্বার
গ্রামীণফোনinfo4949
টেলিটকinfo1600
মেসেজের মাধ্যমে সিমের নিবন্ধন যাচাই

সিম রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার নিয়ম

অনেক সময় অপ্রয়োজনীয় অথবা অকেজো হয়ে যাওয়া সিম কার্ডের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার প্রয়োজন হয়। তাছাড়া আপনারা আইডি কার্ড দিয়ে যদি অন্য কেউ সিম রেজিস্ট্রেশন করে থাকে এবং সেই সিম কার্ড ব্যবহার করে কোন প্রকার অনৈতিক ও অপরাধমূলক কাজ করে তাহলে তার দায়ভার আপনার উপর আসবে।

তাই নিরাপত্তার স্বার্থে এবং সিম কার্ড জনিত নানান জটিলতা এড়াতে অপ্রয়োজনীয় সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা উচিত। তাছাড়া একটি জাতীয় পরিচয় পত্র ব্যবহার করে 15 টি সিম নিবন্ধন করা যায়, অপ্রয়োজনীয় সিম দিয়ে এই কোটা শেষ করার কোন মানে হয় না।

আপনি ইতোমধ্যে সিম রেজিস্ট্রেশন চেক করে কোন সিম গুলো প্রয়োজনীয় এবং কোন গুলো অপ্রয়োজনীয় তা চিহ্নিত করে ফেলেছেন। অপ্রয়োজনীয় সিমের তালিকা আপনার নিবন্ধন থেকে বাতিল করার জন্য ওই সিমের কাস্টমার কেয়ার অথবা নিকটস্থ কাস্টমার সার্ভিস সেন্টারে গিয়ে সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার আবেদন করতে পারেন।

সিম নিবন্ধন বাতিল করার উপায়

সিম নিবন্ধন বাতিল করার জন্য যেই অপারেটরের সিমের নিবন্ধন বাতিল করতে চান তাদের কাস্টমার কেয়ারে কল করতে হবে। তারপর সিম টি বাতিল করার কারণ বলে সিম রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার আবেদন করুন।

কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধি সিমের প্রকৃত মালিকানা যাচাই করার জন্য আপনার কাছ থেকে কিছু তথ্য জানতে চাইবে, এক্ষেত্রে আপনার নাম, আইডি কার্ডের নাম্বার, পিতা মাতার নাম বা জন্মস্থানের ঠিকানা জানতে চাইতে পারে। সবকিছু ঠিকঠাক এবং সিম বাতিল করার কারণ যথাযথ হলে সিমটি বাতিল করার পরবর্তী ধাপে চলে যাবে।

কিছু কিছু ক্ষেত্রে আপনাকে সিমের নিবন্ধন বাতিল করার জন্য ঐ সিম কোম্পানির কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে সরাসরি দেখা করার জন্য বলা হবে। কাস্টমার কেয়ার অফিস থেকে সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার জন্য সাথে করে জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি নিয়ে যেতে হবে।

SIM Registration বাতিল করার কথা বললে কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধি নিজেই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এবং আপনার সিমটি আপনার নিবন্ধন তালিকা থেকে বাতিল করার সব ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আশা করছি আজকের এনআইডি কার্ড দিয়ে সিম কার্ড চেক করার নিয়ম সম্পর্কিত লেখাটি আপনাদের ভালো লেগেছে। সিমের রেজিস্ট্রেশন যাচাই সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকলে নিচের উত্তর পর্ব থেকে জেনে নিতে পারেন। তারপরেও জানার কিছু থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

একটি এন আইডি দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা যায়?

BTRC সর্বশেষ নির্দেশনা অনুসারে একটি এনআইডি / NID দিয়ে সর্বোচ্চ ১৫ টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা যাবে। কারো এই কোটা পূর্ণ হয়ে গেলে অপ্রয়োজনীয় / অকেজো সিমের নিবন্ধন বাতিল করে সেটির স্থলে নতুন সিম নিবন্ধন করা যাবে।

আমার আইডিতে কয়টি সিম নিবন্ধন হয়েছে?

আপনার আইডিতে কয়টি সিম নিবন্ধন হয়েছে সেটি জানার জন্য আপনার আইডিতে নিবন্ধিত যে কোন সিম থেকে ডায়াল করুন *১৬০০১# এবং আইডি কার্ডের শেষ চারটি সংখ্যা দিয়ে জেনে নিন আপনার নিবন্ধিত মোট সিমের সংখ্যা ও বিস্তারিত তথ্য।

সিম কোন আইডি দিয়ে নিবন্ধন করা বের করা যাবে?

আইডি কার্ডের নাম্বার জানা থাকলে ওই জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কয়টি সিম এবং কোন কোন সিম রেজিস্ট্রেশন করা তা জানা যায়। দুঃখের বিষয় এখন পর্যন্ত শুধু সিম নাম্বার দিয়ে কোন আইডি দিয়ে নিবন্ধন করা সেটি বের করার সুযোগ নেই।

পাসপোর্ট দিয়ে কয়টি সিম ক্রয় করা যায়?

পাসপোর্ট কিংবা ড্রাইভিং লাইসেন্স যাই হোক না কেনো, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে একজন ব্যক্তি সর্বোচ্চ 15 টি সিম কার্ড নিবন্ধন করতে পারবে।

আমার নিবন্ধিত সিম অন্য কেউ ব্যবহার করছে কিনা কিভাবে বুঝবো?

উপরে দেখানো নিয়ম অনুসারে প্রথমে যাচাই করুন আপনার আইডি কার্ড দিয়ে কোন কোন সিম নিবন্ধন করা রয়েছে। তারপর সিম গুলো থেকে আপনার ব্যবহৃত সিমের তালিকা চিহ্নিত করুন। অপরিচিত সিম নাম্বার দেখতে পেলে বুঝতে পারবেন সেটি অন্য কেউ ব্যবহার করছে।

বাংলালিংক সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করার কোড কত?

বাংলালিংক সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করার জন্য ফোনের ডায়াল মেনু থেকে *১৬০০১# ডায়াল করুন।

জিপি সিমের নিবন্ধন চেক করার নিয়ম কি?

জিপি সিমের নিবন্ধন চেক করার জন্য ফ্রিতে এসএমএস পাঠাতে পারেন। এসএমএস এ লিখুন info আর সেটি পাঠিয়ে দিন 4949 নাম্বারে। ফিরতি মেসেজে আপনার আইডি কার্ডের সকল সিমের তালিকা দেখতে পাবেন।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

32 Comments