জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার নিয়ম | Birth Certificate Download 2023

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার উপায় বা ডাউনলোড করার সঠিক পদ্ধতি জানতে চান? তাহলে আপনি সঠিক যায়গায় এসেছেন। ১৭ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন এবং জন্মতারিখ ব্যবহার করে অনলাইন থেকে আপনার Birth Certificate Download করতে পারবেন।

আজকে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার পদ্ধতি জানিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রদান করব। মূলত জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড বা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড প্রায় একই জিনিস যা মানুষ বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে গুগলে সার্চ করে থাকে।

জন্ম নিবন্ধন সনদ এর প্রয়োজনের খাতিরে আমরা অনেকেই জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে চাই। তবে অনেকেই আমরা এই বিষয়ে অবগত নই। তো আপনি অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন ডাউনলোড করার পদ্ধতি জানতে চান এবং জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চান তাহলে এই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

জন্ম নিবন্ধন সনদ কি?

একটি শিশু জন্মের পর সরকারি খাতায় সেই শিশুর নাম লেখানোই হলো জন্ম নিবন্ধন সনদ। শিশুর জন্মের পর বাংলাদেশী নাগরিকের স্বীকৃতি দেয়ার আইনগত উপায় হলো এই জন্ম নিবন্ধন সনদ।

নবজাতকের নিজ জাতীয়তা নিশ্চিত করতে এটি প্রথম আইনগত ধাপ এবং এটি প্রতিটি নাগরিকের অধিকার। মূলত এই জন্ম নিবন্ধন সনদ এর মাধ্যমে একটি শিশু দেশের অন্যান্য নাগরিকের মতো সমান অধিকারের একই কাতারে সামিল হয়।

আমাদের প্রত্যেকের উচিৎ সঠিক নিয়মে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করা। শিশুর জন্ম নিবন্ধনে যাতে কোন প্রকার ভুল ত্রুটি না হয়। এই সনদে সমস্যা হলে পরবর্তীতে জাতীয় পরিচয় পত্র ও পাসপোর্ট করতে গেলে নানা রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার জন্য bdris নিবন্ধন সাইটের https://everify.bdris.gov.bd এই লিংকটি ভিজিট করুন। এরপর ১৭ সংখ্যার জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ (YYYY-MM-dd) ইনপুট করে করে “Search” বাটনে ক্লিক করুন । তারপর কিবোর্ডের ctrl+p এক সাথে চেপে জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন কপি ডাউনলোড করুন।

এই পুরো বিষয়টি আরো সহজ ও প্রেক্টিক্যাল ভাবে দেখানোর জন্য কয়েকটি ধাপে বিভক্ত করা হয়েছে। প্রতিটি ধাপে কি করতে হবে তা ছবির মাধ্যমে আরো স্পস্ট করা হয়েছে। সরাসরি ডাউনলোড করার নিয়ম জানতে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন

আমাদের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে হলে আমাদের প্রত্যেকের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন থাকা বাধ্যতামূলক। কারন জন্ম নিবন্ধন সনদ যদি অনলাইন করা থাকে তাহলে আমরা খুব সহজে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করে নিতে পারব।

আমরা আমাদের জন্ম নিবন্ধনের মূলকপি কখনোই অনলাইনে পাব না। আমরা শুধু জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি সংগ্রহ করতে পারবো যা মূল কপি থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। আর যাদের পুরনো হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন সনদ রয়েছে তাদের অনেক ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা থাকেনা।

যদিও বর্তমানে হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন সবগুলো সরকার ডিজিটাল ভাবে তাদের ওয়েবসাইটের সংরক্ষণ করে। তবুও ভুলক্রমে অনেকের জন্মনিবন্ধন সনদ অনলাইন করা বাদ পরে যেতে পারে।

যাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করা নেই তাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ ম্যানুয়াল ভাবে অনলাইন করতে হবে। এটি করার জন্য আপনার জন্মনিবন্ধন কপি নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে যোগাযোগ করুন।

জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল বা অনলাইন হয়ে গেলে ইউনিয়ন অফিস থেকে আপনাকে birth certificate অরজিনাল কপি প্রদান করা হবে, যার মধ্যে চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন সচিবের স্বাক্ষর দেয়া থাকবে। আপনি অনলাইন থেকেও আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন পিডিএফ ডাউনলোড

বর্তমানে অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদের অনলাইন কপি ডাউনলোড করা সম্ভব হয়ে উঠেছে। যার ফলে খুব সহজে যে কেউ তার জন্ম নিবন্ধনের অনলাইন কপি পিডিএফ ডাউনলোড করে সংগ্রহ করে রাখতে পারবে।

জন্ম নিবন্ধন সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার জন্য কয়টি ধাপ রয়েছে। এই ধাপ গুলো অনুসরণ করলে আপনি খুব সহজেই অনলাইন থেকে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। মূলত অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করার বিষয়টি দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে যথাঃ-

  • জন্ম নিবন্ধন যাচাই করণ
  • এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড

প্রথম অংশের বিষয়টি হল অনলাইনের মাধ্যমে কিভাবে যেকোনো জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন দ্বিতীয় অংশের বিষয়টি হলো আপনার জন্ম সনদ অনলাইন হতে কি করে ডাউনলোড করবেন। নিচে এই বিষয় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করণ

জন্ম নিবন্ধন যাচাই ২ ধরণের হয়ে থাকে। ১৭ ডিজিট এর এবং ১৬ ডিজিট এর। ১৭ ডিজিটের জন্য শুধু মাত্র জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়েই জন্ম নিবন্ধন তথ্য খুব সহজে যাচাই করা যায়। আর যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের হয়ে থাকে তাহলে এটি ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৭ ডিজিট এর করতে হলে আপনাকে আপনার ১৬ ডিজিট এর জন্ম নিবন্ধন নম্বরের শেষ ৫ সংখ্যার আগে শুধু মাত্র একটি শূন্য ০ যোগ করতে হবে। তাহলেই এটি ১৭ ডিজিটে রুপান্তরিত হবে। অথবা জন্ম নিবন্ধন নম্বরের প্রথম ১১টি সংখ্যার পরে একটি শূন্য ০ যোগ করতে হবে মূলত দুই টি একই বিষয়।

জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাইকরণ প্রক্রিয়াটি আমরা কয়েকটি ধাপে বিভক্ত করেছি ধাপগুলো অনুসরণ করলে আপনি খুব সহজেই যেকোনো জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে সক্ষম হবেন। অতএব জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুনঃ

ধাপ ১ঃ জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট প্রবেশ

অনলাইনে Birth Certificate Check করতে হলে সর্ব প্রথমে জন্ম নিবন্ধন এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট everify.bdris.gov.bd এ প্রবেশ করুন।

কোন কারণে সরাসরি লিংক কাজ না করলে গুগলে bdris লিখে সার্চ কলে সবার প্রথমে যে সাইটটি দেখতে পাবেন সেটিতে প্রবেশ করুন।

ধাপ ২ঃ জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রদান করুন

ওয়েবসাইটে প্রবেশ এর পর আপনাকে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি লিখতে হবে (উদাহরণ- 198609154281*****)।

এর পরে নিচের বক্সে জন্ম তারিখ লিখুন। এই ফরমেটে জন্ম নিবন্ধন তারিখ লিখতে হবে YYYY MM DD(উদাহরণ “2000-02-15”) । তবে অবশ্যই মনে রাখবেন সবগুলো লেখা ইংরেজি অক্ষরের হতে হবে বাংলা অক্ষর লিখলে কোন তথ্য পাওয়া যাবে না।

জন্ম নিবন্ধন নাম্বার যাচাই

ধাপ ৩ঃ ক্যাপচা পুরন করুন

উপরিউক্ত তথ্য প্রদান করার পরে ওয়েবসাইট ব্যবহারকারী আসলেই মানুষ কিনা তা চেক করার জন্য একটি বা ক্যাপচা দেওয়া হবে। ক্যাপচার সঠিক উত্তরটি ক্যাপচা বক্সে লিখে Search বাটনে ক্লিক করুন। আপনার প্রদানকৃত সকল তথ্য সঠিক থাকলে আপনার তথ্যগুলো আপনি দেখতে পাবেন।

ক্যাপচা পুরন করুন

এবং এই ধাপ সম্পন্ন করার মাধ্যমে আমরা আমাদের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করে ফেলেছি এখন চাইলেই অনলাইন থেকে আমরা আমাদের জন্ম নিবন্ধন ডাউনলোড করতে পারব।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখুন

চলুন এইবার দেখে নেই কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করবঃ

জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন কপি ডাউনলোড করার উপায়

আশা করি ইতোমধ্যে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে পেরেছেন। যাচায় করা হয়ে গেলে ওয়েবসাইটে জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন ভার্সন চলে আসবে তখন আপনি চাইলে সেটি পিডিএফ আকারে ডাউনলোড করে সংগ্রহ করে রাখতে পারেন।

তবে মনে রাখবেন এটি শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন সনদের একটি অনলাইন কপি। অরিজিনাল জন্ম নিবন্ধন সার্টিফিকেট এর সাথে এটির কোন মিল নেই। কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমরা অনলাইন জন্ম সনদ ব্যাবহার করতে পারলেও অনেকক্ষেত্রেই অরিজিনাল জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক চাওয়া হয়ে থাকে।

জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন কপি ডাউনলোড

জন্ম নিবন্ধন এর অরিজিনাল সনদপত্র শুধুমাত্র স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভা থেকেই গ্রহণ করা সম্ভব অনলাইন থেকে এটি সংগ্রহ করা সম্ভব নয়।

তাই বলা যায় অনলাইনে শুধুমাত্র জন্ম নিবন্ধন যাচাই এবং জন্ম নিবন্ধন এর অনলাইন কপি ডাউনলোড করা সম্ভব কোনভাবেই জন্ম নিবন্ধন এর অরিজিনাল সনদপত্র অনলাইন থেকে ডাউনলোড করা সম্ভব নয়।

জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রয়োজনীয় কেনো?

জন্ম নিবন্ধন আমাদের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় বিষয়। আমাদের দেশ এর আইন অনুযায়ী জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যেই শিশুর জন্ম নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক। জন্ম নিবন্ধন সনদ হলো একজন শিশুর জন্ম, বয়স, পরিচয় ও নাগরিকত্বের প্রমাণ।

রাষ্ট্রের নাগরিকের মর্যাদা স্বীকৃত ও বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে হলে জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রদর্শন করা বাধ্যতামূলক। যেসব কাজে আমাদের জন্ম নিবন্ধনের প্রয়োজন হয়ঃ

  • পাসপোর্ট ইস্যু করতে
  • বিবাহ নিবন্ধন করতে
  • বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু করতে
  • ভোটার তালিকা প্রণয়ন করতে
  • ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা
  • বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ করা
  • শিশু শ্রম প্রতিরোধ করা
  • জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি হওয়া

এই সকল কাজ ছাড়া আরও বিভিন্ন ধরনের কাজ এর জন্য জন্ম নিবন্ধন সনদ এর প্রয়োজন হয়। তাই আমাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ সংগ্রহ করে রাখা উচিত।

হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করবেন কিভাবে?

হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন যদি পুনরায় ডাউনলোড করতে চান তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধনের ১৭ ডিজিট নাম্বার টি থাকা অত্যন্ত প্রয়োজন। তাহলে আপনি খুব সহজেই আপনার হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পারবেন।

অনেক সময়ে আমাদের জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে যায়। চিন্তা করবেন না বর্তমানে খুব সহজে পুনরায় জন্ম নিবন্ধন বের করা সম্ভব। সাধারণত দুটি উপায়ে হারানো জন্ম নিবন্ধন সনদ পুনরায় পাওয়া যেতে পারে।

এখন অনলাইনের মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধন সনদের জন্য আবেদন করা সম্ভব। এছাড়াও সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদ অথবা পৌরসভাতেও হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধনের জন্য পুনরায় আবেদন করা সম্ভব।

ইউনিয়ন পরিষদ জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করবেন কিভাবে?

২টি উপায়ে ইউনিয়ন পরিষদ জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করা যায়। প্রথমে যাচাই করে দেখুন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে রেয়েছে কিনা। যদি থাকে তাহলে ইউনিয়ন পরিষদ অথবা পৌরসভা থেকে আপনার সনদটি সংগ্রহ করুন।

তাছাড়া আপনি অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি পেতে পারেন। মনে রাখবেন অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে অধিকাংশ কাজ হলেও মুল কপির সাথে অনলাইন কপির অনেক পার্থক্য রয়েছে।

শেষ কথা

তো এই হলো অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। আশা করি আমাদের দেওয়া তথ্যের মাধ্যমে আপনারা জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড করতে পেরেছেন। তবুও কোন কিছু যদি বুঝতে না পারেন তাহলে নিচের কমেন্ট বক্সে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

16 Comments

  1. ১৭ ডিজিটের নাম্বারটা আমার মনে নাই আমার জন্ম নিবন্ধন টা হারিয়ে গেছে কিভাবে তোলা সম্ভব অনলাইনে

    1. হারানো জন্ম নিবন্ধন পেতে হলে ইউনিয়ন পরিষদে যোগাযোগ করতে হবে। অনলানে সরাসরি বের করার তেমন উপায় নেই। তবে আপনার তথ্য দিয়ে আবার নতুন আবেদন করতে গেলে ডুপ্লিকেট ধরা পরবে, তখন সেটা থেকে আপনার হারিয়ে যাওয়া জন্ম নিবন্ধনের তথ্য পেয়ে যাবেন।

  2. হাতের লেখা জন্ম নিবন্ধন দিয়েছিলাম অনলাইন করে দিতে
    দেখা গেলো অনলাইন ঠিকই করছে বানান ভূল জন্ম তারিখ ভূল
    আরো ইত্যাদি ভূল তো আছেই
    এখন কি করবো

  3. ভাই আমার পাসপোর্ট সংক্রান্ত একটা সমস্যা আছে।
    আমার (জন্ম নিবন্ধন,সকল সার্টিফিকেট) এ আম্মুর নামের শেষে (খাতুন) নেই, কিন্তু আমার NID তে আম্মুর নামের শেষে (খাতুন) আছে।

    এখন আমি জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে পাসপোর্ট বানালে কি কোনো সমস্যা আছে??